‘ঢাকা নগর পরিবহনের চালক-স্টাফদের নির্দিষ্ট পোশাক থাকবে’

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশ: 2021-12-26 02:49:58 | রাজধানী

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, সবার নিরলস পরিশ্রমে আজ থেকে চালু হচ্ছে ঢাকা নগর পরিবহন। ঢাকা নগর পরিবহনে প্রথম দিন থেকেই ই-টিকিটিং সিস্টেম চালু হয়েছে। এ ছাড়া এ রুটে প্রতিটি বাসের চালক-স্টাফদের নির্দিষ্ট পোশাক থাকবে, সেই সঙ্গে তাদের আইডি কার্ড গলায় এবং বাসে ঝোলানো থাকবে। আজ রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) মোহাম্মদপুর থেকে ঢাকা নগর পরিবহন বাস রুট পাইলটিংয়ের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, এটি বাস্তবায়নের জন্য আমরা ২০টি মিটিং করেছি। করোনার মধ্যে মিটিং করেছি। ঢাকা শহরে শৃঙ্খলা ফেরাতে চেষ্টায় গিয়ে আমরা বুঝেছি বাস রুট রেশনালাইজেশনের কোনো বিকল্প নেই। আমরা কাজ করেছি এ জন্য। সবার অক্লান্ত পরিশ্রমে আজ এটা পরীক্ষামূলকভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে। এ রুটে যারা বাস চালাবে সবার ড্রেস থাকবে। পরিচয়পত্র বাসের ভেতরে টাঙিয়ে রাখতে হবে। শৃঙ্খলা আনতে বাসের বিকল্প নেই। যদি সবকিছু মেন্টেইন করতে পারি, তা হলে সড়কে প্রাইভেটকারের চাপ কমবে।তিনি বলেন, এ রুট চালাতে সবার সহযোগিতা লাগবে। সবার সহযোগিতা পেলে এটা খুব ভালোভাবে আমরা পরিচালনা করতে পারব। এটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। তবে সবার সহযোগিতা পেলে সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে আধুনিক ঢাকা গড়া আমাদের জন্য সহজ হবে।জানা গেছে, বিআরটিসির ৩০টি ডাবল ডেকারসহ ৫০টি বাস দিয়ে পরীক্ষামূলকভাবে এ রুটে কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। আগামী দুই মাসের মধ্যে এ রুটে বাসের সংখ্যা ১০০-তে উন্নীত করা হবে।গণপরিবহনে বিশৃঙ্খলা দূর করতে বাস রুট রেশনালাইজেশন কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চালু হচ্ছে ঢাকা নগর পরিবহন। মোহাম্মদপুর এলাকায় এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে।

কেরানীগঞ্জের ঘাটারচর থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত প্রায় ২৭ কিলোমিটারের রুটে বিআরটিসির বাসের পাশাপাশি সবুজ রঙের বাস নিয়ে ঢাকা নগর পরিবহন যাত্রা শুরু করছে। এরইমধ্যে বাসগুলো প্রস্তুত করা হয়েছে। ফুল দিয়ে সাজানোও হয়েছে। বাসগুলো যেখানে রাখা হয়েছে, তার পাশেই তৈরি করা হয়েছে বিশাল উদ্বোধনী মঞ্চ।জানা গেছে, প্রায় ২৭ কিলোমিটারের এ রুটে ঢাকা নগর পরিবহনে কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া পড়বে দুই টাকা ২০ পয়সা।