শরিফুলের টেস্ট অভিষেক

পরিবর্তনের আভাস পাওয়া গিয়েছিল আগেই। বোলিং আক্রমণে বৈচিত্র্য আনার লক্ষ্যে অভিষেক করানো হতে পারে তরুণ বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলামের, ম্যাচের আগের দিনই এমনটা জানা গিয়েছিল।
সত্যি হলো তা-ই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে বাংলাদেশের ৯৭তম ক্রিকেটার হিসেবে অভিজাত টেস্ট ফরম্যাটে নাম লেখালেন ১৯ বছর বয়সী শরিফুল ইসলাম। ডানহাতি পেসার এবাদত হোসেন চৌধুরীর জায়গায় নেয়া হয়েছে তাকে। বাংলাদেশ একাদশে পরিবর্তন এই একটিই।

সিরিজের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছিল বাংলাদেশ। এবার বদলে গেল পুরো চিত্র। টস জিতেছেন লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারাতেœ, জানিয়েছেন আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত। টসের সময় মুমিনুল হক জানিয়েছেন, টস জিতলে তিনিও আগে ব্যাটিং নিতেন।
ব্যাটিংবান্ধব উইকেটে হওয়া প্রথম ম্যাচে একটু বেশিই খরুচে ছিলেন এবাদত হোসেন। তার করা ২১ ওভারে গড়ে প্রায় ৫ করে ৯৯ রান তুলে নেয় শ্রীলঙ্কা। একদিকে তাসকিন আহমেদ যখন আগুনে বোলিং করেছেন, তখন এবাদত ছিলেন ছন্নছাড়া। এ কারণেই মূলত বাইরে বসতে হচ্ছে তাকে।
এবাদতের জায়গায় অভিষেক হওয়া শরিফুলের খুব বেশি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা নেই। অভিষেকের আগে মাত্র ৮টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন তিনি। যেখানে তার শিকার ২২টি উইকেট। তবে নিউজিল্যান্ড সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজে তার বোলিংয়ে ছিল সম্ভাবনার ছাপ। তাই এবার পেয়ে গেলেন ৯৭ নম্বর টেস্ট ক্যাপ।