মরুভূমিতে পথ হারিয়ে এক পরিবারের ৮ সদস্যের মৃত্যু

লিবিয়ার মরুভূমিতে পথ হারিয়ে সুদানের একটি পরিবারের ৮ সদস্যের করুণ মৃত্যু হয়েছে।
মৃত একজনের হাতে থাকা চিরকুট থেকে জানা যায়, সুদানের এল ফাশার থেকে একটি টয়োটা গাড়িতে করে একটি পরিবারের তিনজন নারী ও পাঁচজন পুরুষ সদস্য লিবিয়ার কুফরা শহরের উদ্দেশে ২০২০ সালের আগস্টে রওনা করেন।

লিবিয়ার এক মরুভূমিতে পথ হারিয়ে ক্ষুধা আর তৃষ্ণায় তারা মারা যান। মৃত একজনের হাতে থাকা চিরকুটে লেখা ছিল- যিনিই আমার এ চিঠিটি পাবেন, তাকে যানাচ্ছি, এটি আমার ভাইয়ের টেলিফোন নম্বর।
তাকে বলবেন, ঈশ্বরের ওপর আস্থা রেখে বলছি, আমি চেষ্টা করেছিলাম মাকে নিয়ে তার কাছে যেতে। আমাকে ক্ষমা কর, আমি পৌঁছাতে পারলাম না।
স্থানীয় গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে নেটিজেনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।
স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, সুদান থেকে ওই পরিবারটির ৮ সদস্যসহ ২১ জন লিবিয়া আসছিল। তাদের সঙ্গে তিন শিশুও ছিল। বাকি ১৩ জনের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি।
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়া একটি ছবিতে দেখা যায়, মরুভূমিতে একটি টয়োটা গাড়ির চারদিকে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে কয়েকটি মরদেহ। এগুলোর মধ্যে কয়েকটির কিছু অংশ আবার বালুর নিচে চাপা দেওয়া। লিবিয়ার সরকার এ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।