রাজনীতি

  • হোম
  • বিস্তারিত খবর
ঢাকা-২০ আসনে নৌকার নির্বাচনী প্রচারণায় প্রিসাইডিং অফিসার
অ্যাডমিন / ০৩-০১-২০২৪

ঢাকা-২০ আসনে নৌকার নির্বাচনী প্রচারণায় প্রিসাইডিং অফিসার

৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচন উপলক্ষে চলছে প্রচার-প্রচারণা। এরই মধ্যে ঢাকা-২০ ধামরাইয়ে নৌকার প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা বেনজির আহমদের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে দুজন প্রিসাইন অফিসার।

অভিযুক্ত প্রিসাইডিং অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম ধামরাই উপজেলার নবযুগ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল। অপরজন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার মো. আলতাফ হোসেন লাবু হামিদা আফাজ বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক।

মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) এ ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাদ্দেছ হোসেন নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, মো. আলতাফ হোসেন লাবু ও মো. জাহাঙ্গীর আলম দুজনই সরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক হওয়া সত্ত্বেও নিয়মিত বেনজির আহমদের সঙ্গে সরাসরি নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিচ্ছেন। ঘরে ঘরে ভোট প্রার্থনা করছেন। যা সম্পূর্ণ নির্বাচনী বিধি পরিপন্থী। নির্বাচনিবিধি অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

গত মঙ্গলবার ও শুক্রবার নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে গণসংযোগ করেন মো. জাহাঙ্গীর আলম ও মো. আলতাফ হোসেন লাবু। নৌকার প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণার ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। ভাইরাল হওয়া ছবিতে প্রিসাইডিং অফিসার দুজনের হাতে নৌকার লিফলেট দেখা যায়।

নবযুগ কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল মো. জাহাঙ্গীর আলম গণমাধ্যমকে বলেন, আমি প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্বের চিঠি পেয়েছি আজকে। এর চার দিন আগে থেকে আমাদের ট্রেনিং করানো হয়েছে। ট্রেনিংয়ের আগে গিয়েছিলাম নৌকার প্রচারণায়। প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পাওয়ার পর আর যাইনি। এরপরও যদি আমার প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব থেকে বাদ দেওয়া হয় আমার কোনো সমস্যা নাই।

হামিদা আফাজ বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আলতাফ হোসেন লাবু বলেন, আমি কোনো প্রচারণায় যায়নি। আমার বাড়ির পাশে পরিচিত লোকজন আসছিলেন ভোট চাইতে। তখন আমার পরিচিতরা আমাকে ডেকে হাতে লিফলেট দিয়ে বলছে ভোট চান।

ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ বলেন, এ বিষয়ে দুটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তারা নির্বাচনী কোনো প্রচারণা করতে পারেন না। তারা যদি সরকারিভাবে বেতন পেয়ে থাকেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

3 Comments:

  1. Lorem Ipsum has been the industry’s standard dummy text ever since the 1500s, when an unknown printer took a galley of type and scrambled it to make a type specimen.

    1. Lorem Ipsum has been the industry’s standard dummy text ever since the 1500s, when an unknown printer took a galley of type and scrambled it to make a type specimen.

    Lorem Ipsum has been the industry’s standard dummy text ever since the 1500s, when an unknown printer took a galley of type and scrambled it to make a type specimen.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked