‘কাট-কপি-পেস্ট’র উদ্ভাবক কম্পিউটার বিজ্ঞানীর মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের কম্পিউটার বিজ্ঞানীদের মধ্যে অন্যতম ল্যারি টেসলার ৭৪ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেছেন। তিনি বহুল ব্যবহৃত কম্পিউটার কমান্ড ‘কাট, কপি ও পেস্ট’ উদ্ভাবন করেছিলেন। সোমবার তার মৃত্যু হয় বলে বুধবার টুইটারে ঘোষণা দিয়েছে জেরক্স।
এক বিবৃতিতে জেরক্স জানায়, কাট, কপি ও পেস্ট, ফাইন্ড ও রিপ্লেসহ আরো বেশ কিছু বহুল ব্যবহৃত কমান্ডের উদ্ভাবক ছিলেন ল্যারি। আর বৈপ্লবিক ধারণার কারণে আমাদের কাজগুলো অনেক সহজ হয়েছে। সোমবার তার মৃত্যু হয়েছে। আসুন তাকে ঊর্ধ্বে তুলে ধরি।

স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক পাস করা ল্যারি টেসলাম কম্পিউটারের সাথে মানুষের মিথস্ক্রিয়া বিশেষজ্ঞ হবে নিজেকে গড়ে তুলেছেন। তিনি কাজ করেছেন অ্যামাজন, অ্যাপল, ইয়াহু ও জেরক্স পালো আল্টো রিসার্চ সেন্টারে।
পুরনো সম্পাদনার পদ্ধতি, যাতে ছাপা অক্ষর এক স্থান থেকে কেটে অন্যত্র আঁটা লাগিয়ে বসানো হয়; তা থেকেই কাট-পেস্ট ধারণার সূত্রপাত। ১৯৮৩ সালে অ্যাপল তার কাট, কপি ও পেস্ট কমান্ডটি লিসা কম্পিউটারে যুক্ত করার পর এই কমান্ড জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। পরের পর প্রথম ম্যাকিন্টোশ কম্পিউটারে কমান্ডটি যুক্ত করতে তা জনপ্রিয় হয়। সিলিকন ভ্যালির কম্পিউটার ইতিহাস জাদুঘর টুইটারে লিখেছে, টেসলারের লক্ষ্য ছিল কম্পিউটার হবে সবার জন্য। জেরক্স থেকে টেসলারকে ১৯৮০ সালে অ্যাপলে নিয়ে আসেন কোম্পানিটির প্রয়াত সহপ্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস। এখানে তিনি প্রায় ১৭ বছর কাজ করেন।